Tag: কবিতা

মলাট ও মোড়কের গল্প

আজকের এই গল্প বিবর্ণ হবে আগামী কাল, আসবে ফিরে নতুন মোড়কে।
ভালোবাসা ফের বন্ধী হবে নতুন মলাটের গম গম গন্ধে, আহ 🙂

এই উচ্ছ্বাস কিংবা ‘আবারো হাসিমুখ’ শিরোনাম হবে অননুমোদিত উদ্ধত চিৎকারে !

বৃত্ত বন্ধী কিংবা গর্তবাসী নয়, বেঁচে থাকা হোক কেন্দ্র এবং পরিধির দ্বন্দ্ব মুক্ত।

…………………………।
২৫।০১।২০১৩ (ইং), মানচুমাহারা

ডায়েরীর পাতাঃ
মলাট ও মোড়কের গল্প

ব-ফলা ও য-ফলা ( পথিক )

কয়েকটি স্বস্তা চকোলেট, পাঁচ টাকার ঝালমুড়ি,
আর কমসহযোগীতামূলক ঠান্ডা বাতাস,
পথ এবং পথিকের সেই চিরচেনা গল্পের একটা ছোট খন্ড ।।

নতুন আর পুরানা দিনের সেতু বন্ধন খুঁজতে পথিকের স্বরবর্ণের ব-ফলা আর ব্যঞ্জনবর্ণের য-ফলা …
একীভূত হয়ে একটা বড় বাবুদের গল্প ফাঁদে !

পথের কাছে পথিক অচেনা নয়, কম চেনা ।

পথিকের কাছে পথ সবসময় অচেনা, নতুন , আহ, মায়ারে 🙁

পথা একা না পথিক একা ? যুদ্ধ ?
তৃতীয় পক্ষ বটবৃক্ষ, শান্তি চাই নইলে জাত যাবে তো !

………………।
২৭।০১।২০১৩, মানচুমাহারা

ডায়েরীর পাতাঃ

ডায়েরীর পাতা

দেওয়াল

একটা উচু দেওয়ালের সামনে প্রতিদিনই দাঁড়ায় আর
ভাবি এই দেওয়ালটার তৈরি না হলে কি খুব ক্ষতি হতো ?

মাঝে মাঝে ভাবি দেওয়ালটি জবরদস্তি করে ভেঙ্গে ফেলি কিংবা
এতো দূরে পালিয়ে যায় যেখান থেকে আমি চাইলেও এই দেওয়ালের কাছে আসতে পারবো না … হে হে

ধরে নিলাম, আমি দেওয়াল ভেঙ্গে ফেলেছি কিন্তু
এইযে এতো বছর ধরে মনের ভেতর আর এক বিশাল দেওয়াল তৈরি হয়েছি সেটার কি হবে ?

ভাবছো আমি নিরাশাবাদী … হে হে না ঠিক তেমনটি নয়, আমি জানি আমি একদিন এই মনের দেওয়ালও ভেঙে ফেলবো, তারপর ?
দেওয়ালের ওপাশে যা আশা করেছিলাম তা থাকবেতো, নাকি সবই ফাঁকি।।

ভাবছি দেওয়ালের প্রতিপালককে ধমক দিয়ে বলি,
ফাজলামি পাইছো, ইচ্ছা হইলো আর দেওয়াল তুলে মজা দেখো না ?
———————————————————————————-
২৫.০৪.২০১০
উৎসর্গঃ একটি অদৃশ্য দেওয়াল এবং তার প্রতিপালককে

খন্ডিত সত্ত্বা

আমি প্রতিনিয়ত খন্ডিত হই,
খন্ডিত অংশ গুলো আবার খন্ডিত হয়,তারাও আবার খন্ডিত হয় ।
প্রতিটি খন্ড আমার সত্ত্বাকে বয়ে নিয়ে যায়
ওরা আমার চিন্তা বহন করে,আমার ভাবনা গুলোকে ধারন করে
প্রতিটি খন্ড আমার না মেলানো প্রশ্ন নিয়ে তোমাদের দুয়ারে যায়,
কিছু কিছু আমি আমার কাছে ফিরে আসে !
আমি আমার চিন্তা গুলোকে ফিরে পাই,
ওরা আমাকে আশাবাদী করে তুলে,
আমার আত্মবিশ্বাস দৃঢ় হয়,
কিন্তু কিছু কিছু কালের গর্ভে হারিয়ে যায়!
অনন্ত অসীমের তৃষ্ণায় ওরা ছুটে বেড়ায়,
না পাওয়া প্রশ্নোত্তরের আশায় ওরা ভবঘুরে,
ওরা ভবঘুরে ঈশ্বরের পেছনে ঘুরে বেড়ায়,
আমার ভাবনা চুরি করে ওরা ফেরি করে !!
আমি ওদের আমার ভাবনা গুলোকে ফিরিয়ে দিতে বলি,
ওরা দেয় না,
ওরা ফিরে আসে না,
ওদের ধরতেই ছুটে চলেছে মানচুমাহারা।
…………………………………………………
মানচুমাহারা
১,৮,২০০৬