ঢেউ (The Wave)

ঢেউ যত বড় হয় তার আঘাত করার ক্ষমতা তত বেশি। প্রতিটি ঢেউই এক সময় নিস্তেজ হয়ে যায়। তবে ঢেউ এর শক্তির মাত্রা নির্ধারণ করে এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া কতখানি হবে এবং কতদিন থাকবে।

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া শুধুমাত্র ঢেউ এর শক্তির উপরই নির্ভর করে না যার উপর ঢেউ প্রতিক্রিয়া দেখাচ্ছে তার উপরও নির্ভর করে।

সময়ের সাথে সাথে ঢেউ যেমন নিস্তেজ হয়ে যায় তেমনি ঢেউ এর তৈরি পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও সময়ের সাথে বিলীন বা পরিবর্তিত হয়ে যায়।

আমরা সময় এবং অবস্থান এর প্রক্ষিতে কেউ কেউ ঢেউ এর সরাসরি প্রতিক্রিয়া দেখতে পারি আর কেউ কেউ শুধুমাত্র পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া এর চিহ্ন দেখতে পায়।

যারা সরাসরি ঢেউকে সরাসরি জানতে পারেন আর যারা শুধুমাত্র পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থেকে ঢেউকে জানার চেস্টা করে তাদের জানা এবং বোঝার ভেতর পার্থক্য থাকে।

সময়ের সাথে সাথে ঢেউ যেমন বিলীন হয়ে যায় তেমনি নতুন ঢেউও তৈরি হয় তবে প্রতিটি ঢেউ এর আঘাত আর আঘাত এর কারণে তৈরি পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া একই হয় না।

নোটঃ এই লেখায় ঢেউ একটি প্রতিকী শব্দ মাত্র।

একদিন যে শর্ট ফিল্মটা আমি বানাবো

সেদিন ইস্টার্ন প্লাজার বাম পাশে নতুন গড়ে ওঠা চা দোকানে চা খাচ্ছি আর মার্কেট এর কাস্টমার বের হওয়া ও প্রবেশ দেখছিলাম, সাথে মার্কেটের সামনে চিরস্থায়ী গাড়ী/বাইকের হর্ণ যুক্ত জ্যাম এনজয় করছিলাম। খেয়াল করলাম এক মহিলা চায়ের দোকান থেকে সামান্য দূরে দাঁড়িয়ে ভিক্ষা করছেন। আমাকে খেয়াল করলেও আমার দিকে আসেননি। মার্কেট এর সামনে যাকে পাচ্ছেন তার কাছে হাত পাতছেন। হঠাৎ খেয়াল করলাম এক বিদেশী (চেহারায় বাংলাদেশ এর পাহাড় অঞ্চল কিংবা থাইল্যান্ড/মিয়ানমার এর নাগরিক মনে হচ্ছিল) সাথে এক বাংলাদেশী গাইড বা সঙ্গী।

ভিক্ষুক মহিলা ঐ বিদেশীর কাছে হাত পাতলে সে(বিদেশী) তার সাথে থাকা বাংলাদেশী ব্যক্তিকে ইশারা দিয়ে ঐ মহিলা কি বলে শোনার জন্য ইঙ্গিত দিল। দূর থেকে যা বুঝলাম বাংলাদেশী লোকটা হাতের ইশারা দিয়ে মহিলাকে চলে যেতে বলব !

এবার ভিক্ষুক মহিলা চায়ের দোকানের সামনে(দোকানে পাশে আমি দাঁড়ানো এক মাত্র লাইভ ক্রেতা হিসাবে যে এখনো কাঁচের কাপ থেকে চুক চুক করে চা খাচ্ছে আর সামনের ঘটনা পর্যবেক্ষন করছে ) এসে চায়েক দোকানদার ছোকরাকে বলব, দেখলি, শালা বাঙালী … (বেশ খারাপ গালি) আমাকে ভিক্ষা দিতে দিল না, বিদেশী কিন্তু আমাকে দিতে চাইছিল। … মহিলা আর এক প্রস্থ একই কায়দায় কিছু বলার পর চায়ের দোকানের ছেলেটার দিকে হাত পাতলে ছেলেটা বাঙালীর ইজ্জত বাজাতে দুটাকা তাঁর হাতে দিল। আমার দিকেও মহিলা হাত বাড়িয়ে ভিক্ষার জন্য ইশারা(আবেদন) করল। আমি অভ্যস্থ বাঙালীর মত মাথা ঝাকিয়ে না বোধক উত্তর দিয়ে চায়ের কাপ শেষ করার দিকে মনযোগ দিলাম। মহিলাম অবশ্য আমাকে নিয়ে কোন কটুক্তি না করে ভিক্ষার কাজে মনযোগ দিলেন।

আমার শর্টফিল্মের কাহিনী এই টুকুই। এটা আমি বানাবো ৫ মিনিট এর কাহিনী হিসাবে তবে শর্ট ফিল্মের দৈর্ঘ্য এত ছোট বা ৫ মিনিট হবে না। এটার কাহিনী প্রথমে আমি যা লিখেছি তা দেখানো হবে, এরপর আবার শুরুতে আসবে, এবার কাহিনী দেখানো হবে চাওয়ালা ছোকরার চোখ দিয়ে মানে সে বাড়িয়ে গিয়ে তার কচি বউ বা বাড়ির অন্যদের কাছে ঘটনা কিভাবে বর্ণনা করছে… এভাবে আবার ৫ মিনিট, এরপর ভিক্ষুক মহিলা, সেই হাইব্রিড বিদেশী, সেই বাংলাদেশী/বাঙালী, এবং আশেপাশের অন্য কোণ ব্যক্তিবর্গ যাকে আমি খেয়াল করিনি কিন্তু সে এই ঘটনা খেয়াল করেছে।

যদি শর্ট ফিল্ম বানাতে টাকার ঘাটতি পরে আর আপনাদের কাছে হাত পাতি আপনারা বাঙালীর ইজ্জত রাইখেন কিন্তু !

একটা ব্যাপার খেয়াল করলাম যে, আপনারা বাংলাদেশী আর বাঙালী জাতিয়তা যা নিয়েই লাফ বা ফাল দেন না কেন প্রসংশা বা গালি বা সমালোচনার করার সময় সবাই ‘বাঙালী’ তুলে কথা কয়।

ও হর্ণওয়ালা, তুমি আর একটু ভেপু বাজাও

হে তরুন ভালোবেসে
তোমাকে দিলাম একখন্ড গালি,
এলাকার সেরা বাছাই করা খিস্তি বুলি।

তোমাকে আরো দেব একটা ভেপু বা হরেন বা হর্ণ বা
বা … তোমার মটর বাইকে তোমার আঙুলের কাছে সেই চিরচেনা বাটন বা … তোমার প্রাইভেট কারের ড্যাশবোর্ডে বসানো যেই সুচারু বাটন …
যা তুমি টিপবে, তুমি টিপবে। তোমার সারা জীবনের যত স্ট্রেস তুমি ঐ বাটনে চেপে চেপে ঢাকার রাস্তায় উগ্রে দিবে।

তুমি … তুমি টিপবে, তুমি টিপবে, তুমি হরেনের বাটন চেপে চেপে আমার কান ফাটাবে।

হে তরুন, হে অচেনা বাইকার, হে অমুক ডেরাইভার
তোমাকে ভালোবেসে আমি দেব খন্ড খন্ড গালি।

তুমি … তুমি টিপবে, তুমি টিপবে, তুমি হরেনের বাটন চেপে চেপে আমার কান ফাটাবে।

তোমার গুষ্টির সবার সুখ শান্তির জন্য দৈব চয়নে বাছাই করে
আমি ঢাকার রাস্তার কোন এক চৌরাস্তার মোরে প্রার্থনা পূজায় বসব।
ঈশ্বরকে স্বাক্ষী রেখে আমি তোমাকে উদ্দেশ্য করে মনে মনে আওড়াবো বাছাই করা খিস্তি বুলি। আমার সামনে পেছনে তোমাদের ভীড় লেগে যাবে, তোমরা হর্ণ বাজিয়ে বাজিয়ে বাজিয়ে উলুধ্বনি দিবে।

হে তরুন ভালোবেসে
তোমাকে দিলাম একখন্ড গালি,
এলাকার সেরা বাছাই করা খিস্তি বুলি।

হে তরুন, হে অচেনা ডেরাইভার তোমার পশ্চাৎদ্বেশে হর্ণ বাজাও
হর্ণ বাজিয়ে বাজিয়ে আমার কানের পর্দা ফাটিয়ে দাও।

[নোটঃ জানেন ভাবি অমুক তারিখে ফেসবুকে আমার এই কবিতাটা গেছিল।]

Restrict Any WordPress Post/Page for Any Specific User Role

Sometimes we need to restrict any specific wordpress post or page for any specific user role. For this there are lots of plugin. While replying to a facebook group post where someone asked something lightweight or no heavy plugin. So tried to write a simple one file plugin with hard coded page or post id and user role which can be used in theme. Here I am sharing the code if that helps other who is reading this article.

হইচই

প্রিয়তমা,

এই সুন্দর পরিবেশে এসো আমরা দুদন্ড হইচই করি।

তুমি এক মুঠো কাঁদা আমায় ছিটিয়ে দাও, আমিও এক মুঠো তোমার গায়ে।

এরপর এই কাঁদাকাঁদির সুন্দর পরিবেশে এসো আমরা আলিঙ্গন করি, হইচই করি।

প্রিয়তমা,

তোমাকে এই সুন্দর পরিবেশে যে কোন মূল্যে হইচই করতে হবে। সুন্দর দিনের শেষে তুমি আমার গায়ে পানি ঢেলে দাও, আমিও তোমার গায়ে … পানি ঢেলে দেই…ই ?

প্রিয়তমা,

দিন শেষে রাতের সুন্দর পরিবেশেও তোমাকে হইচই করত হবে। ডিসি না মার্ভেল এর মুভি দেখব এটা নিয়ে আমাদের ভেতর তুমুল হইচই হবে।

প্রিয়তমা,

গভীর রাতের সুন্দর পরিবেশে আমরা হইচই করতে করতে একে উপরের গায়ে এলিয়ে পড়ব।

আমরা তুমুল হইচই করব।
আমরা তুমুল হইচই করব।
আমরা তুমুল হইচই করব।

//২৮/০৮/২০১৯

Move to Hash Using JQuery – Three Cases

Sometimes we need to implement smooth jump for hash link click, we can do it in many ways using javascript or jquery. There are lots of jquery plugins to do that, here I am trying to write simple jquery tricks that handles some specific situation to handle jump or hash link click or tracking.

My Target:

  1. Jump based on window hash url
  2. Hash link click for same page
  3. Hash based external link

#1 Jump based on window hash url

First case: if user is visiting with a hash url , so our duty is to help the user jump to the hash id

#2 & 3# Jump based on click

Second and third case is user click on any user, it can be simple hash link or a link with hash at end, So, only hash as link should be for same page, but any valid link with hash at end should be another page or external page.

All three cases are handled in below code sample, Marked the 3 situation in code using #

I covered the situation when there is hash link or hash in url but the hash id or html element doesn’t exists

Another thing to consider, while we move the user to the hash id/html element without moving to screen to that vertical point, it’s better to move 90-100 px less so that user can see the html element more clear, in terms of ux.

গুটেনবার্গ ব্লক(ডাইনামিক) মাল্টি সিলেক্ট ফিল্ড(Gutenberg Block (Dynamic) Multi Select Field)

গুটেনবার্গ ব্লক(ডাইনামিক) মাল্টি সিলেক্ট ফিল্ডঃ

গুটেনবার্গ ব্লক এর ডাইনামিক ব্লকের(স্টাটিক কি হয় পরীক্ষা করি নাই) মাল্টি সিলেক্ট ফিল্ড এর ক্ষেত্রে আমি একটা সমস্যায় পড়েছিলাম ফিল্ডটাইপ কি লিখব সেটা নিয়ে। যেহেতু ডাইনামিক ব্লকের ক্ষেত্রে পিএইচপি থেকে ফিল্ড টাইপ এবং ডিফল্ট ভ্যালু গুলো ডিক্লেয়ার করতে হয় তাই আমি এই রকম লিখেছিলাম

‘id’ => array(
‘type’ => ‘array’,
‘default’ => array()
),

ব্লক এর আউটপুট একটা শর্টকোড ছিল। শর্টকোড সরসরি ব্যবহার করলে কোন ইরর পাচ্ছিলাম না কিন্ত ব্লকের আউটপুট থেকে আসলে ইরর পাচ্ছিলাম এই রকম

PHP Notice: Undefined index: items in … \wp-includes\rest-api.php on line 1150

আমি যে প্লাগিন নিয়ে কাজ করছিলাম সেটার কোডের ভেতর কাকতলীয় ভাবে অনেক জায়গায় এরের ইন্ডেক্স হিসাবে ‘items’ কীটা ব্যবহার করেছি কিন্তু এটার সাথে রেস্ট এপি এর সম্পর্ক খুঁজে পাচ্ছিলাম না। পরে গুগল সার্চ করে পেলাম মাল্টি সিলেক্ট ফিল্ড এর ক্ষেত্রে array এর আইটেম গুলোর টাইপও ডিক্লেয়ার করে হয় যা নিচে

‘id’ => array(
‘type’ => ‘array’,
‘default’ => array(),
‘items’ => array(
‘type’ => ‘integer’
)
),

‘items’ কী টার সাথে array এর আইটেম গুলোর টাইপ ডিক্লেয়ার করার ক্ষেত্রে ‘items’ কীটা ব্যবহার আমাকে বেশি কনফিউজ করে দিয়েছিল সমস্যাটা বুঝতে।

২য় হচ্ছে, আমার জ্ঞানের অভাব কিভাবে মাল্টি সিলেক্ট ফিল্ড এর ক্ষেত্রে array এর আইটেম গুলোর টাইপ ডিক্লেয়ার করতে হয় কিনা সেইটা না জানা

৩য়, আমি এটার সমাধান খুঁজে পেয়েছি ওয়ার্ডপ্রেস এর রেস্ট এপি নিয়ে খুঁজতে গিয়ে, এর সাথে গুটেনবার্গ এর ডাইনামিক ব্লক এর সম্পর্ক আছে কারন গুটেনবার্গ ডাইনামিক ব্লক এর আউটপুট পিএইচপি থেকে রেন্ডার করে আর এর জন্য json রিকোয়েস্ট পাঠায় যা রেস্ট এপি রিকোয়েস্ট।

৪র্থ, এটা এখানে শেয়ার করলাম যদি কারো উপকার হয় কারণ গতকাল এই সমস্যার সমাধান না করা অবস্থায় অফিস ক্লোজ করে বাসায় চলে গিয়েছিলাম, সকালে এসেই আগে এটা নিয়ে বসলাম।

শেষঃ কোণ সমস্যা যখন বুঝতে পারি না বা কিভাবে সমাধান করব বুঝতে পারি না বা সমস্যার সমাধান খুঁজে পাই না তখন আমি একটা গ্যাপ দেই কাজ থেকে বা কোড করা থেকে। এই গ্যাপটা অফিস থেকে বের হয়ে চা, বিড়ি, পান খাওয়া বা ফেসবুকে অভিনেত্রী জয়া আহসান এর ফেসবুক পেজে ঢু মারা যে কোন কিছুই হতে পারে।

My post in wordpressian facebook group
https://www.facebook.com/groups/wordpressians/permalink/1397270923744425/

Gutenberg Block (Dynamic) Multi Select Field:

In the Gutenberg block’s dynamic block (whether static or not tested) in the multi select field, I had a problem with what to write on the fieldtype. Since dynamic block requires field type and default values ​​to be declared from PHP, I wrote like this.

‘id’ => array (
   ‘type’ => ‘array’,
   ‘default’ => array ()
),

The block’s output was a shortcode. I could not get any error when using shortcode sarsera but I was actually getting error from block output.

PHP Notice: Undefined index: items in … \ wp-includes \ rest-api.php on line 1150

I used the ‘items’ key as the index of the error in many places inside the code of the plugin I was working with but I could not find the relation of Rest AP with it. After doing a Google search, I can also declare the type of the items in the array in the Multi Select field below.

‘id’ => array (
   ‘type’ => ‘array’,
   ‘default’ => array (),
   ‘items’ => array (
      ‘type’ => ‘integer’
   )
),

Using the ‘items’ key to declare the type of the items in the array with the ‘items’ key made me more confused to understand the problem.

Secondly, my lack of knowledge on how to declare the type of array items in the multi select field is not known.

Third, I found a solution to this with WordPress’s Rest AP, but it has links to Gutenberg’s Dynamic Block because Gutenberg Dynamic Block’s output renders it from PHP and sends the json request to the Rest API request.

Fourth, I shared it here if anyone would benefit because yesterday, after closing the office, I closed the office and did not solve the problem, I sat with it before dawn.

Lastly, when I don’t understand the angle problem or understand how to solve it or I can’t find a solution, I give a Gap from work or code. This Gapta can be anything from leaving the office to drinking tea, bidi, drinking or going to actress Jaya Ahsan’s Facebook page.

Entertainment Talk Show Idea for BD TV Channels

বিনোদন মিডিয়ার জন্য একটা বিনোদন মূলক বিজনেস আইডিয়াঃ

কলকাতার বাংলা সিরিয়াল এর বাংলাদেশী দর্শকদের বাংলাদেশের টিভি চ্যানেলে ফিরিয়ে আনার বিষয়ে আমার একটা চিন্তা।

আমাদের দেশে নিশ্চিৎ ভাবেই কিছু মানুষ টক শো দেখে না হলে প্রতিদিন রাতে প্রায় প্রতিটি টিভি চ্যানেলে টক শো হতো না। কিন্তু তথাকথিত টক শো দেখে দিন শেষে মানুষ একটা হতাশা বা না পাওয়া নিয়ে ঘুমাতে যায়।

“The Walking Dead” নামে একটা ইংলিশ টিভি সিরিয়াল এর বিষয়ে গপসপ করার জন্য আর একটা টক শো সিরিয়াল হয় যার নাম “Talking Dead”. এই কন্সেপ্ট কাজে লাগিয়ে আমরা যেটা করতে পারি সারা দিন কলকাতার বাংলা টিভি চ্যানেল গুলোতে যে জনপ্রিয় টিভি সিরিয়াল হয় বা বাংলাদেশীদের প্রিয় টিভি সিরিয়াল গুলোর কাহিনীর সারাংশ নিয়ে আলোচনার জন্য প্রতিদিন কয়েকজন আংকেল আন্টিকে ডেকে টক শো এর আয়োজন করা যেতে পারে। অন্তত সারাদিন কেউ যদি কোন সিরিয়াল মিসও করে ফেলে সেইটার ফলো আপ আলোচনা সমালোচনা জানা এবং দেখার জন্য বাংলাদেশী টিভি চ্যানেলে নিশ্চিৎ ভাবেই ঢু মারবে। এই ধরনের টক শো এর নাম “Talking Dead” দিলেও চলত কিন্তু ইংরেজি নাম লোকে খাবে না। বাংলা কোন নাম খুঁজতে হবে। যেমন – “মৃতদের কেচ্চা!”

প্রথমত আইডিয়াটা হাস্যকর মনে হলেও যদি কোন টিভি চ্যানেল এটা ইমপ্লিমেন্ট করে আমার ধারণা তাদের অন্তত এই অনুষ্ঠান এর জন্য কোন দিন চ্যানেল বন্ধ করা লাগবে না।

বিঃ দ্রঃ আমি এই আইডিয়ার কপিরাইট এর জন্য আবেদন করব কিনা সবার মতামত চাচ্ছি।

ফাঁসীর রায়ের নথি হারিয়ে গেছে!

ছোট গল্পঃ

এক উদভ্রান্ত প্রেমিক রাগের মাথায় জনসমক্ষে তার প্রেমিকাকে খুন করে ফেলল। তারপর অনুতপ্ত হয়ে নিজেই নিজের নামে থানায় গিয়ে মামলা করে দিল। দীর্ঘ বিচার এর সময় প্রেমিক প্রচন্ড অন্তর্জালায় জর্জরিত হল।

দীর্ঘ অপেক্ষার পর এক দিন আদালত তার ফাঁসীর রায় দিল। ফাঁসী কার্যকর করার দিন শোনা গেল ফাঁসীর রায়ের নথি হারিয়ে গেছে!

হিরকরাজার ডাস্টবিন দর্শন

ছোট গল্পঃ
একদিন হিরকরাজা গেলেন একটা ডাস্টবিনের ভেতর বেড়াতে। গিয়ে দেখলেন, ডাস্টবিনে কোন ময়লা নাই, ডাস্টবিন এর ভেতর সুগন্ধি বাতাস বয়ে যাচ্ছে। উনি তখন সবাইকে ঝাড়ি দিলেন, তোমরা শুধু শুধু ডাস্টবিনকে দোষারোপ কর, আমিতো দেখছি এটা চেটে খাওয়া যায়।

এরপর কিছুদিন পর জাহিদ সাহেব ( Anarja Adim) যাচ্ছিলেন ঐ ডাস্টবিনের পাশ দিয়ে, দুর্গন্ধে নাকে রুমাল চেপে যেতে যেতে অনুভব করলেন সমস্যা তার নাকে।